Author bio

Author Image

Syed Mujtaba Ali - book author

Syed Mujtaba Ali (Bengali: সৈয়দ মুজতবা আলী) was a Bengali author, academician, scholar and linguist.

Syed Mujtaba Ali was born in Karimganj district (in present-day Assam, India). In 1919, he was inspired by Rabindranath Tagore and started writing to the poet. In 1921, Mujtaba joined the Indian freedom struggle and left his school in Sylhet. He went to Visva-Bharati University in Santiniketan and graduated in 1926. He was among the first graduates of the university. Later, he moved to Kabul to work in the education department (1927–1929). From 1929 to 1932 he studied at the universities in Berlin, London, Paris and Bonn. He earned Ph.D. degree from University of Bonn with a dissertation on comparative religious studies in Khojas in 1932.
In 1934-1935 he studied at the Al-Azhar University in Cairo. Subsequently, he taught at colleges in Baroda (1936–1944) and Bogra (1949). After a brief stint at Calcutta University (1950), Mujtaba Ali became Secretary of the Indian Council for Cultural Relations and editor of its Arabic journal Thaqafatul Hind. From 1952 to 1956 he worked for All India Radio at New Delhi, Cuttack and Patna. He then joined the faculty of Visva-Bharati University (1956–1964).

Syed Mujtaba Ali is the author of books: দেশে বিদেশে, চাচা কাহিনী, শব্‌নম্‌, পঞ্চতন্ত্র, জলে ডাঙায়, শ্রেষ্ঠ রম্য রচনা, অবিশ্বাস্য, শ্রেষ্ঠ গল্প, রচনাবলী – ১, হিটলার

Author Signature

Author Books

#
Title
Description
01
দেশে বিদেশে-কে বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক ভ্রমণকাহিনী হিসেবে গণ্য করা হয়। দেশে বিদেশে-র মত অন্য কোনো ভ্রমণকাহিনী আজ পর্যন্ত বাংলা সাহিত্যে এতটা জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি। একটি ভ্রমণকাহিনী হওয়া সত্ত্বেও আফগানিস্তানের ইতিহাসের একটি অনবদ্য দলিল এই বই। লেখকের রম্য রসাত্বক বর্ণনা, বিভিন্ন পরিচিত কিংবা অপরিচিত মানুষের সাথে রসালাপ, ভ্রমণের সময় বিভিন্ন স্থানের বর্ণনা এবং শেষ পর্যায়ে এসে আফগানিস্তান ছেড়ে আসার কাহিনী অসাধারণভাবে তুলে ধরা হয়েছে এই বইতে।
02
* সয়ম্বরা
* কর্নেল
* মা-জননী
* তীর্থহীনা
* বেল তলাতে দু-দু'বার
* কাফে-দে জেনি
* বিধবা বিবাহ
* রাক্ষসী
* পাদটীকা
* পুনশ্চ
* বেঁচে থাকো সর্দি-কাশি
05
A travelogue of the author's journey from India by sea.
07
অবিশ্বাস্য উপন্যাসটি যে কোন বড় মাপের সৃষ্টিশীল কাজের মত বহুমাত্রিক। ধর্ম ও ধর্মীয় অনুষঙ্গ উপন্যাসটিতে আদ্যন্ত। বুঝতে কিছুমাত্র অসুবিধা হবেনা, তুলনামূলক ধর্মতত্বের একজন প্রত্যয়নিষ্ঠ ও নিবেদিতপ্রাণ স্কলারের পক্ষেই এই ধরণের উপন্যাস পরিকল্পনা অনায়াসে সম্ভব। এক অর্থে এই উপন্যাসটির বিষয়ঃ নৈতিকতার সংকট ও উত্তরণের চেষ্টা। পাপবোধ ও আত্মগ্লানিকে বিভিন্ন ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা এবং জীবন রসরসিকতার প্রেক্ষিতে নায়কের আত্মজিজ্ঞাসাকে সর্বজনীন অন্বেষণে উন্নীত করার প্রয়াস।

কাহিনীসংক্ষেপঃ
ছোট্ট এক মহকুমা শহর মধুগঞ্জে অ্যাসিস্টেন্ট সুপারিন্টেন্ডেন্ট অব পুলিশ হয়ে আসলেন আইরিশম্যান ডেভিড ও-রেলি। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই এলাকার বাঙ্গালী আর অন্যান্য সাহেব, মেমদের মন জয় করে নিলেন সদাহাস্য এ তরুণ। কিছুদিন পর বিয়েও করলেন। কিন্তু বিয়ের আগের আর পরের ও-রেলীর মধ্যে এত পার্থক্য কেন?
08
1. নেড়ে
2. পাদটীকা
3. ক্রন্দসী
4. সিনিয়ার এপ্রেন্টিস
5. পুনশ্চ
6. নোনাজল
7. চাচা-কাহিনী
8. সাবিত্রী
9. নোনামিঠা
10. আধুনিকা
11. কর্ণেল
12. মা-জননী
13. বেঁচে থাকো সর্দিকাশি
14. বিষের বিষ
15. তীর্থহীনা
16. মণি
17. এক পুরুষ
09
সূচিপত্র:
• সৈয়দ মুজতবা আলী (জীবনী) – সৈয়দ মুর্তাজা আলী
• কথারসিক সৈয়দ মুজতবা আলী – প্রমথনাথ বিশী
• ভূমিকা – গজেন্দ্রকুমার মিত্র
• পঞ্চতন্ত্র (১ম পর্ব)
• ময়ূরকণ্ঠী
• দ্বন্দ্বমধুর
• গ্রন্থপরিচয়
10
'হিটলার' একটি জীবনীগ্রন্থ জাতীয় রচনা। সৈয়দ মুজতবা আলী এখানে হিটলারের পূর্ণাঙ্গ জীবনের কথা বলেননি, তবে ওই নাৎসী নেতার জীবন ও কর্মের সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য কতগুলো প্রবন্ধের মাধ্যমে অতিশয় জীবন্ত করে পরিবেশন করেছেন। হিটলার গ্রন্থটি পাঠকালে একটা জিনিস খুব স্পষ্টভাবে ধরা পড়ে। লেখক যে প্রচুর পড়াশোনা করেছেন, একজন একনিষ্ঠ ও পরিশ্রমী গবেষকদের মত এক তথ্যের সঙ্গে অনেক তথ্যের তুলনা করে প্রকৃত সত্য প্রতিষ্ঠায় ব্রতী হয়েছেন। হিটলারকে নিয়ে তাঁর এই প্রবন্ধগুলোর জন্য তিনি যেমন ওই নাৎসী নেতার রাজনৈতিক জীবন, তার সমরাভিযান, তার ইহুদীনিধনযজ্ঞ প্রভৃতির কথা বলেছেন তেমনি তার অন্তরঙ্গ ব্যক্তিগত জীবন ও তার প্রেম নিয়েও আকর্ষণীয় আলোচনা করেছেন। এজন্য মুজতবা আলীর পড়াশোনার গভীরতা ও ব্যাপকতা দেখে বিস্মিত হতে হয়। তিনি উত্তম জার্মান ভাষা জানতেন, তাই সংশ্লিষ্ট তথ্যাদি মূলপাঠের মাধ্যমে সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছেন। (ফ্ল্যাপ)